মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

উপজেলা প্রশাসনের পটভূমি

 

মধ্যযুগের ইতিহাস থেকে জানা যায়, ১৩৩৮ খ্রিস্টাব্দের দিকে বাংলার শাসনকর্তা ফখরদ্দিন মেবারক শাহ দিল্লীর সুলতানের অধীনতা অস্বীকার করেন এবং নিজেকে স্বাধীন নৃপতি হিসেবে ঘোষণা করে ভাটি রাজ্যের প্রসিদ্ধ স্থান সরাইলে তার নবগঠিত রাষ্ট্রের রাজধানী স্থাপন করেন। একসময় ব্রাহ্মণবাড়িয়া ছিল সরাইল পরগনার অর্ন্তগত। ১৭৯০ খ্রিস্টাব্দে ত্রিপুরা জেলা গঠিত হওয়ার পূর্ব পর্যন্ত সরাইল পরগণা কার্যকর ছিল। পরবর্তীতে ১৭৯৩ খ্রিস্টাব্দে চিরস্থায়ী বন্দোবস্তের ফলে সরাইল ময়মনসিংহ কালেক্টরেটের অধীনে চলে যায়। ১৮৬০ সালে নাসিরনগর মহকুমা  প্রতিষ্ঠিত হলে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অধিকাংশ এলাকা নাসিরনগর মহকুমার অন্তর্ভূক্ত হয়। ১৮৭৫ সালে নাসিরনগর মহকুমাকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া মহকুমা নামকরণ করা হয়। ১৯৬০ সালে ত্রিপুরা জেলার পূর্ব পাকিস্তান অংশের নামকরণ হয় কুমিল্লা জেলা। তখন ব্রাহ্মণবাড়িয়া একটি মহকুমা শহর হিসেবে পরিচিতি ছিল। ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে দেশ স্বাধীনতা লাভ করে। স্বাধীনতা উত্তর প্রশাসনিক বিকেন্দ্রীকরনের সময় ১৯৮৪ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারী ব্রাহ্মণবাড়িয়াকে জেলা ঘোষণা করা হয়। তার পূর্বেই ১৯৮২ সালের ৭ নভেম্বর থেকে সরাইল উপজেলা হিসেবে কার্যক্রম শুরু করে।

 

শুরুতে ১০টি ইউনিয়ন নিয়ে যাত্রা শুরু করলেও বর্তমানে এর ইউনিয়ন সংখ্যা ০৯টি।